নীড় / বিবিধ / সংবাদ / এবার ভেড়া উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নিল সরকার

এবার ভেড়া উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নিল সরকার

“সমাজভিত্তিক ও বাণিজ্যিক খামারে দেশী ভেড়ার উন্নয়ন ও সংরক্ষণ (২য় পর্যায়) প্রকল্প” শির্ষক একটি প্রকল্প জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটিতে (একনেক) পাস হয়েছে। প্রকল্পের ব্যায় ধরা হয়েছে ৪৩ কোটি ৪১ লাখ টাকা। সবটাই আসবে সরকারি কোষাগার থেকে। উল্লেখ্য, এর আগে দারিদ্র্য বিমোচনে ছাগল উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নিয়েছিল খালেদা জিয়ার চারদলীয় জোট সরকার। উত্তরবঙ্গে ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল ব্ল্যাক বেঙ্গল। এবার শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার দেখছে ভেড়া উন্নয়নের স্বপ্ন। তাই ৪৩ কোটি ৪১ লাখ টাকা বাজেট ধরে ভেড়া উন্নয়ন প্রকল্প নিয়ে মাঠে নামতে যাচ্ছে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়।

জানা যায়, ভেড়ার জাত সংরক্ষণ ও উন্নয়নের জন্য এ প্রকল্প হাতে নেওয়া হচ্ছে। সামাজিক ও বাণিজ্যিক খামারের মাধ্যমে দেশীয় ভেড়া জাত সংরক্ষণের জন্য এ ক্যাটাগরিতে ৫ বিভাগের ১২ উপজেলা এবং বি ক্যাটাগরিতে ৬৪ জেলার ৪৮০ উপজেলায় এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে।

শব্দ নীড় নামে একটা ব্লগে দেখলাম একজন পাঠক এ নিয়ে একটা আর্টিকেল লিখেছেন, তার কথাগুলির সাথে আমিও একমত-“খালেদা জিয়া ছাগল উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নিয়েছিলেন। শেখ হাসিনা নিলেন ভেড়া উন্নয়ন প্রকল্প। ভেড়া উন্নয়ন প্রকল্পে প্রতিটি বিদেশী ভেড়ার দাম ধরা হয়েছে এক লক্ষ পচিঁশ হাজার টাকা আর ভেড়া নিরাপদ রাখতে বেওয়ারিশ কুকুর নিধনে ব্যায় ধরা হয়েছে বিশ লাখ টাকা। জীবনে বহু ভেড়া দেখেছি (আজকেও দেখলাম এক ভেড়া টি.ভি তে বলছে সোনালী ব্যাঙ্কের চার হাজার কোটি টাকা তেমন কিছু না) তবে লাখ টাকার ভেড়া বাপের জন্মে দেখি নাই। ভাবছি লাখ টাকার ভেড়াগুলো একবার নিজের চোখে দেখে মরতে পারলেও জীবনে আর কোন কিছু না দেখার আফসোস থাকবে না।

শুধু ভেড়া কেন? বেওয়ারিশ কুকুর দেখারও সাধ হয়েছে। কুকুরগুলো কতই না ভাগ্যবান তাদের মারতেও বিশ লাখ টাকা খরচ করতে হবে। শুনলাম সব মিলিয়ে প্রথম পর্যায়ে ভেড়া কেনা হচ্ছে ১০৬০ টি। এখন পন্ডিত মশাই এর মত অঙ্ক কষাই যেতে পারে। প্রত্যেক ভেড়ার নিরাপত্তার জন্য একটা কুকুর নিধন করা হলে প্রত্যেক কুকুর মারতে খরচ হয় ১৮৮৭ টাকা। অবশ্য এত কুকুর ভেড়ার পিছনে কেন ঘুরঘুর করবে তাও বোধগম্য হচ্ছে না। যদি ধরেও নিই প্রত্যেক ভেড়ার প্রেমে হাবুডুবু খেয়ে কুকুরগুলো ইভ টিজিং করবে, তবু কুকুর নিধনে ১৮৮৭ টাকা কিভাবে ব্যয় হবে সেটা ভেবেই কুল কিনারা করতে পারছি না। কুকুর জবাই করে গোস্ত বানিয়ে রান্না করতেও তো কসাই আর বাবুর্চি এত টাকা দাবী করবে না। এখন কুকুর নিধনে সরকার ব্যায় করবে না সরকারের আশে পাশে ঘুরঘুর করা কুত্তা সামলাতে ব্যায় হবে সেটাই দেখার বিষয়।

৪৩ কোটি ৪১লাখ টাকা খরচ করে ভেড়া উন্নয়ন প্রকল্প হাতে না নিয়ে সরকারের ভিতর ঘাপটি মেরে থাকা ভেড়াগুলোর ব্যাপারে কোন প্রকল্প গ্রহন করলে দেশ ও জাতি সর্বাধিক উপকৃত হত।”

লেখকঃ হৃদ রহমান

এটাও দেখতে পারেন

আগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে বিভিএ-র সম্মেলন

আগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ ভেটেরিনারি এসোসিয়েশন-এর বিভাগীয় সম্মেলন। ১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠা লাভের পর এবারই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *