নীড় / বিবিধ / সংবাদ / পোল্ট্রি ও ডেইরি শিল্প পুনঃঅর্থায়ন স্কিমের আওতায় ঋণ পাবে

পোল্ট্রি ও ডেইরি শিল্প পুনঃঅর্থায়ন স্কিমের আওতায় ঋণ পাবে

পোল্ট্রি ও ডেইরি শিল্প স্থাপনে এখন থেকে কম সুদে ঋণ পাওয়া যাবে। কৃষিজাতপণ্য প্রক্রিয়াজাতকরণের জন্য পৌরসভার বাইরে মফস্বল এলাকায় শিল্প স্থাপনে পুনঃঅর্থায়ন স্কিমের আওতায় এই ঋণ পাওয়া যাবে বলে বাংলাদেশ ব্যাংকের এসএমই এন্ড স্পেশাল প্রোগ্রামস বিভাগের গত ৩১ জুলাই জারিকৃত এক সার্কুলারে জানানো হযে়ছে।

তাতে বলা হযে়ছে ২০১০ সালের ২ সেপ্টেম্বরে জারিকৃত এসএমইএসপিডি সার্কুলার লেটার নং ৪ এর সংযোজনী ক এর সঙ্গে ৩৭ নং ক্রমিকে পোল্ট্রি ও ডেইরি শিল্পকে অন্তর্ভুক্ত করা হলো। ফলে এ খাতের শিল্পোদ্যোক্তারা এখন থেকে কম সুদে ঋণ নিতে পারবেন সংশ্লিষ্ট ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে। এ ব্যাপারে এসএমই বিভাগের মহাব্যবস্থাপক সুকোমল সিংহ চৌধুরী গতকাল ভোরের কাগজকে বলেন, পোল্ট্রি ও ডেইরি শিল্পে পুনঃঅর্থায়ন স্কিমের সুযোগ ওই খাতের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। শুধু তাই নয়, শিল্পোদ্যোক্তাদের শিল্পের বিকাশে সহায়ক হবে।

কৃষিভিত্তিক শিল্পের মধ্যে পুনঃঅর্থায়ন স্কিমের আওতাভুক্ত খাত হলোঃ

প্রক্রিয়াকরণকৃত ফলজাত খাদ্য (জ্যাম, জেলি, জুস, আচার, শরবত, সিরাপ, সস ইত্যাদি) উৎপাদনকরী শিল্প; ফল (টম্যাটো, আম, পেয়ারা, ইক্ষু, কাঁঠাল, লিচু, আনারস, নারিকেল) শাক-সবজি, ডাল প্রক্রিয়াকরণ; ব্রেড এন্ড বিস্কুট, সেমাই, লাচ্ছা, চানাচুর, নুডুলস, আটা, ময়দা, সুজি প্রস্তুতকরণ; মাশরুম ও স্পিরুলিনা প্রক্রিয়াকরণ; স্টার্চ, গ্লুকোজ, ডেক্সট্রোজ এবং অন্যান্য স্টার্চ পণ্য উৎপাদনকারী শিল্প; দুগ্ধ প্রক্রিয়াকরণ (দুধ পাস্তুরিতকরণ, গুঁডে়া দুধ, আইসক্রিম, কনডেন্সড মিল্ক, মিষ্টি, পনির, ঘি, মাখন, চকোলেট, দধি ইত্যাদি)। আলু থেকে প্রক্রিয়াজাত খাদ্য (চিপস্, পটেটো ফ্লেক্স, স্টারস্) উৎপাদনকারী শিল্প; বিভিন্ন গুঁড়া মসলা উৎপাদনকারী শিল্প; ভোজ্যতেল পরিশোধন ও হাইড্রোজিনেশন শিল্প; লবণ প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প; চিংডি় ও অন্যান্য মাছ প্রক্রিয়াজাতকরণ ও হিমাযি়তকরণ; হারবাল ও ভেষজ কসমেটিক্স প্রস্ততকারী শিল্প; ইউনানি, আয়ুর্বেদিক ওষুধ প্রস্ততকারী শিল্প; হাঁস, মুরগি ও গবাদি পশু ও মাছের জন্য সুষম খাদ্য প্রস্ততকারী শিল্প; বীজ প্রক্রিয়াজাতকরণ ও সংরক্ষণ; পাটজাত দ্রব্য প্রস্তুতকরণ (যেমন দডি়, সুতা, চট, থলে, কার্পেট, পাটের সেন্ডেল প্রভৃতি); রেশম বস্ত্র উৎপাদনকারী; কৃষিজাতপণ্য উৎপাদনে সহায়ক যন্ত্রশিল্প স্থাপন, মেরামত প্রভৃতি; চাল, মুডি়, চিঁড়া, খৈ ইত্যাদি প্রস্ততকরণ; সুগন্ধি চাল; চা প্রক্রিয়াকরণ শিল্প; নারিকেল তেল প্রস্ততকারী শিল্প (যদি দেশীয় নারিকেল থেকে সংগৃহীত কোপরা ব্যবহার করা হয়); রাবার টেপ, লাক্ষ্যা প্রক্রিয়াজাতকরণ। এছাড়া কোল্ড স্টোরেজ (কৃষকদের উৎপাদিত খাবার আলু ও বীজ আলু, ফলমূল, শাক-সবজি প্রক্রিয়াজাতকরণ ও সংরক্ষণ); কাঠ, বাঁশ ও বেতের আসবাব তৈরি/উৎপাদন (কুটির শিল্প ছাড়া); ফুল সংরক্ষণ ও রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান; মাংস প্রক্রিয়াজাতকারী প্রতিষ্ঠান; জৈব সার, মিশ্র সার, গুটি ইউরিয়া ইত্যাদি তৈরি; বাযে়াপেস্টিসাইড, নিম উৎপাদিত পেস্টিসাইড ইত্যাদি তৈরি; মৌমাছির চাষ/মধু তৈরির প্রকল্প; রাবারজাত দ্রব্যাদি তৈরির প্রকল্প; পার্টিকেল বোর্ড; সরিষার তেল প্রস্ততকারী শিল্প (যদি দেশীয় সরিষা ব্যবহার করা হয়); ধানের তুষ, পোল্ট্রি ও গরুর গোবর থেকে বাযে়াগ্যাস ও বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রকল্প; চালের কুঁড়া থেকে ভোজ্যতেল উৎপাদন শিল্প।

পুনঃঅর্থায়ন স্কিমের আওতায় অনেক প্রকল্প রযে়ছে যা কম সুদে ঋণ পাওয়া যাবে। কিন্তু তা অনেকের কাছে অজানা। পুনঃঅর্থায়নের জন্য বিবি ফান্ড (ওমেন ফান্ড), হাউজিং ফান্ড, ইজিবিএমপি ফান্ড, জাইকা ফান্ড এবং এডিবি ফান্ড গঠন করা হযে়ছে। সম্প্রতি জাইকা ফান্ড গঠনের ফলে ৪১৫ কোটি টাকার পুনঃঅর্থায়নের সুযোগ পাচ্ছে বিভিন্ন ব্যাংক ও আর্থিক
প্রতিষ্ঠানগুলো। এর ফলে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো এ সুযোগ গ্রহণ করে গ্রাহকের কাছে পৌঁছে দিতে সক্ষম হচ্ছে।

তথ্যসূত্রঃ দৈনিক ভোরের কাগজ / অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য : ০৮/০৮/২০১২

লেখকঃ ডাঃ তায়ফুর রহমান

ডাঃ তায়ফুর রহমান; ডিভিএম, এম এস ইন ফার্মাকোলজী (বাকৃবি); ফিল্ড রিসার্চ অফিসার, জুনোটিক ডিজিজ রিসার্চ গ্রুপ; আইসিডিডিআর,বি (icddr,b); এবং ব্লগ এডমিনিষ্ট্রেটর, ভেটসবিডি

এটাও দেখতে পারেন

আগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে বিভিএ-র সম্মেলন

আগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ ভেটেরিনারি এসোসিয়েশন-এর বিভাগীয় সম্মেলন। ১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠা লাভের পর এবারই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *