সাম্প্রতিক পোস্ট

নিপাহ : প্রাণঘাতী ভাইরাস

নাম করণ ঃ ১৯৭৮ সালের দিকে মালয়েশিয়ার প্রথম নিপাহ ভাইরাসের সন্ধান পাওয়া যায়। দেশটির নেজেরি সেমভিলান রাজ্যের সুংগাই নিপাহ গ্রামে এ ভাইরাস পাওয়া যায় বলে এর নামকরণ করা হয় নিপাহ ভাইরাস। এটা Paramyxoviridae পরিবারের একটি অনত্মর্গত একটি ভাইরাস। নিপাহ ভাইরাস আবিস্কার করেন Dr. Chua Kaw Bing. বাহক ঃ টেরোপডিডি (Pteropodidae) …

বিস্তারিত »

WORLD VETERINARY DAY AWARD 2014

In 2008 the World Veterinary Association (WVA) and the World Organization for Animal Health (OIE) agreed on the creation of the World Veterinary Day Award aimed at rewarding the most successful celebration of the contribution of the veterinary profession to society. Like previous years, in 2014 WVA and OIE will …

বিস্তারিত »

বিশ্ব ভেটেরিনারি দিবস-এ কোথায় কী আয়োজন

আগামী ২৬ এপ্রিল বিশ্ব ভেটেরিনারি দিবস উপলক্ষ্যে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও সংশ্লিষ্ট সংগঠন সমূহ নানা কর্মসূচী গ্রহণ করেছে। এবারের থীমঃ Animal Welfare । আসুন জেনে নিই কোথায় কিভাবে দিবসটি উদযাপিত হতে যাচ্ছে-   The Vet Executive : সকাল ৯টাঃ জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে থেকে র‌্যালি সকাল ১০টাঃ এনিম্যাল ওয়েলফেয়ার শীর্ষক …

বিস্তারিত »

বিশ্ব ভেটেরিনারি দিবসে’২০১৪ পবিপ্রবির তিন দিনের বিশাল কর্মসূচি

পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে “বিশ্ব ভেটেরিনারি দিবস’২০১৪” উপলক্ষ্যে তিন দিনের বিশাল কর্মসূচি গ্রহন করা হয়েছে ।এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় “Animal Welfare”.”বিশ্ব ভেটেরিনারি দিবস’২০১৪” উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক ,্এনিমেল সায়েন্স এন্ড ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের চেয়ারম্যান ও সহকারি অধ্যাপক ড.এ কে এম মোস্তফা আনোয়ার আমাদের জানান ,” এ বছর তিন দিনের …

বিস্তারিত »

Special issue of BDvet iNewsletter on World Veterinary Day 2014

Dear Bangladeshi Veterinarians, Hope all of you are in good health. It is our pleasure to inform you that, we are going to publish an especial issue of BDVet iNewsletter (eISSN 2221-9897) on the occasion of the upcoming World Veterinary Day 2014. We are cordially inviting you to submit your write up …

বিস্তারিত »

কালো সিরাজ কবুতর রোগ, সাহায্য প্রার্থী

আমার কালো সিরাজ কবুতর জোড়া কয়েকদিন আগে ডিম ফুটিয়েছিল একটা। কিন্তু প্রথম বাচ্চা ফোটার পর দূর্ভাগ্যবশতঃ বাচ্চাটি দ্বিতীয় দিনে নর কবুতরটির চাপায় মারা যায়। পরবর্তি ডিমটি আর ফোটায় নি। তার ২ দিন পর নর কবুতরটি কেমন যেন ঝিম হয়ে গেছে। উড়ছে না। হাঁটছে, তবে খুবই ধীর গতিতে। খাচ্ছে, তবে আসলেই …

বিস্তারিত »

রংপুর বিভাগের সংকর জাতের গাভীর প্রাণঘাতি রোগ (The silent killer of cross bred cows of Rangpur Division)

কি সেই রোগ যাকে এভাবে উপস্থাপন করতে হলো। ইউনিভারসিটিতে পড়া অবস্থায় এ রোগগুলি প্যারাসাইটোলজী, মাইক্রোবায়োলজী ও মেডিসিন বিভাগে পড়ানো হতো তখন গুরুত্ব বুঝতাম না কারণ বাস্তবে ওভাবে ক্লিনিকে নজরে আসেনি। ২০০৭ সালে পাস করার পরে বেশিরভাগ সময় রংপুরে কাটলেও তখনো জানতাম না। ২০১০ সালে যখন রাজবাড়ীতে ছিলাম তখনো অজানা ছিল। …

বিস্তারিত »

ইউ এম এস (ইউরিয়া মোলাসেস স্ট্র) বনাম কিছু অজানা তথ্য

ইউ এম এস খাওয়ানোর গবেষণালব্ধ ফলঃ * বিএলআরআই গবেষণায় দেখা গেছে বাড়ন্ত ষাঁড়কে (৩০০ কেজি) ইউ এম এস যথেচ্ছা পরিমাণ খাওয়ানোর সাথে দৈহিক ওজনের শতকরা ০.০৮০-১.০ ভাগ দানাদার মিশ্রণ সরবরাহ করলে দৈনিক ৭০০-৯০০ গ্রাম দৈহিক ওজন বৃদ্ধি পায় | * অন্য গবেষণায় দেখা গেছে পাবনা অঞ্চলের গাভীকে শুকনো খরের পরিবর্তে …

বিস্তারিত »

Physiological data of pigeon

This data will be helpful for both veterinarian, veterinary students and also for pigeon. This is as follows: (1) Water consumption-30-60 ml (2) Feed consumption-20-100 gm (one tenth of the body weight. (3) Body weight-250-1000 gm (light, medium & heavy breeds) (4) Incubation period-17-18 days. (5) Blood volume-Approx. 8 ml/100 …

বিস্তারিত »

কবুতরের টিকা প্রদান সূচী- An effective vaccination schedule of pigeon.

খামারে রোগ প্রতিরোধের জন্য টিকা প্রয়োগ একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় | কবুতরের বিভিন্ন রোগ হয় তবে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো রাণীক্ষেত ও পক্স | এ দুটি রোগে কবতর প্রায়ই আক্রান্ত হয় | রাণীক্ষেত রোগে আক্রান্ত কবুতর বেশিরভাগই মারা যায় | এ রোগের কোনো চিকিৎসা নাই | “Prevention is better than cure.” প্রবাদটি …

বিস্তারিত »

পিপিআর (PPR) রোগের সমন্বিত চিকিৎসা পদ্ধতি-A miracle of treatment of PPR

পিপিআর ছাগল ও ভেড়ার একটি মারাত্মক রোগ। এ রোগে পশু মৃত্যুর হার ৫০-৯০ শতাংশ । আমরা জানি ভাইরাস রোগের কোনো চিকিৎসা নাই। তবে সম্প্রতি বিএল আর আই কতৃক এর সমন্বিত চিকিৎসা পদ্ধতি উদ্ভাবন করা হয়েছে যা এ রোগ দমনে বিশেষভাবে কার্যকর ।এ চিকিৎসা পদ্ধতিতে ৫০-৯০ শতাংশ আক্রান্ত ছাগল সুস্থ হয়ে …

বিস্তারিত »