নীড় / বিবিধ / পাঠক জরিপ / বিভিএ নির্বাচন ২০১৭ উপলক্ষে পরিচালিত অনলাইন জরিপের ফলাফল

বিভিএ নির্বাচন ২০১৭ উপলক্ষে পরিচালিত অনলাইন জরিপের ফলাফল

বিভিএ নির্বাচন ২০১৭ উপলক্ষে ভেটসবিডি ১১ নভেম্বর হতে ২৫ নভেম্বর পর্যন্ত অনলাইন জরিপের মাধ্যমে ভেটেরিনারিয়ানদের কাছে ৫টি প্রশ্নের উত্তর জানতে চাওয়া হয়েছিল । সর্বমোট ১১০ জন জরিপে অংশ নেয়। এর বাইরে আরও ১৬টি পর্যবেক্ষণ বাতিল করা হয়, একই ব্যাক্তি একাধিকবার অংশ নেয়ার কারনে। ফলাফল বিশ্লেষণ করে দেখা যাচ্ছে জরিপে অংশগ্রহণকারীদের ৮৪.৫৫% (৯৩) ডাঃ নজরুল-ড. হাবিব মোল্লা প্যানেলকে সমর্থন করেন। নেতা হিসেবে ৮৩.৬৪% ড. হাবিব মোল্লাকে পছন্দ করেন।

যদিও এটি প্রচলিত অর্থে জনমত জরিপ নয়, তবে এটি ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের স্বেচ্ছায় প্রদত্ত মতামত। জরিপে মোট ৫টি প্রশ্ন করা হয়েছিল । প্রশ্নগুলো হলোঃ
১. বিভিএ নির্বাচন ২০১৭-তে কোন প্যানেল আপনার পছন্দ?
২. নেতা হিসেবে আপনার কাকে সবচেয়ে পছন্দ?
৩. নবগঠিত কমিটি কি দুই বছর পর আবার নির্বাচন দেবেন?
৪. নির্বাচনের পর ভেটেরিনারি পেশার গুণগত পরিবর্তন আসবে বলে মনে করেন কি? এবং
৫. নির্বাচনের পর অর্গানোগ্রাম বাস্তবায়ন হবে বলে আপনি মনে করেন কি?

পরিচিতি হিসেবে ইমেইল আইডি নেয়া হয়।

১ নম্বর প্রশ্নের উত্তর বিশ্লেষণ করে দেখা যাচ্ছে ৮৪.৫৫% (৯৩) মতামত দিয়েছেন ডাঃ নজরুল-ড. হাবিব মোল্লা প্যানেলের পক্ষে আর ১৫.৪৫% (১৭) মতামত দিয়েছেন ডাঃ ইমরান-ডাঃ আনিস-ডাঃ আজিজ প্যানেলের পক্ষে।

২ নম্বর প্রশ্নে নেতা হিসেবে আমরা দুটি প্যানেলের সভাপতি ও মহাসচিব পদপ্রার্থীদের মধ্য থেকে কাকে সবচেয়ে পছন্দ তা জানতে চেয়েছিলাম । ফলাফল বিশ্লেষণ করে দেখা যাচ্ছে ড. হাবিব মোল্লা পেয়েছেন ৮৪ শতাংশের সমর্থন, ডাঃ ইমরান পেয়েছেন ১২ শতাংশের সমর্থন, ডাঃ নজরুল পেয়েছেন ৪ শতাংশের সমর্থন আর ডাঃ আজিজের পক্ষে সমর্থন দিয়েছেন মাত্র একজন। তবে ডাঃ নজরুল ইসলামের পক্ষে শুরুর দিকে সমর্থন না থাকলেও শেষের দিকে তাঁর সমর্থন বেড়েছে। পক্ষান্তরে, ডাঃ ইমরানের পক্ষে শুরুর দিকের তুলনায় শেষের দিকে সমর্থন কমেছে।

যদিও দুই প্যানেলই মেয়াদপূর্তীর পর নির্দিষ্ট সময়ে নির্বাচন দেবেন বলে ভোটারদের কাছে অঙ্গীকার করছেন, তবে জরিপে অংশগ্রহণকারীদের ৭৪.৫৫ শতাংশ মনে করছেন আগামী ২ ডিসেম্বরের নির্বাচনে কেবল ডাঃ নজরুল-ড. হাবিব মোল্লা প্যানেল জয়লাভ করলে তারা দু’বছর পর পুনরায় নির্বাচন দেবেন। আর ১৪.৫৫ শতাংশের মতে যে প্যানেলই জিতুক না কেন তারা যথাসময়ে নির্বাচন দেবেন। অংশগ্রহণকারীদের ১০.৯১ শতাংশ মনে করেন কেবল ডাঃ ইমরান-ডাঃ আজিজ প্যানেল জয়লাভ করলেই তারা দু’বছর পর পুনরায় নির্বাচন দেবেন।

নির্বাচনের পর ভেটেরিনারি পেশার গুণগত পরিবর্তন আসার প্রশ্নে, পক্ষে মতামত দিয়েছেন ৮৭ শতাংশ অংশগ্রহণকারী, ১২ শতাংশের অবশ্য ভিন্ন মত আর একজন ‘মতামত নেই’ এর পক্ষে ছিলেন ।

অর্গানোগ্রাম প্রশ্নে ৭৭ শতাংশ মনে করেন নির্বাচনের পর অর্গানোগ্রাম বাস্তবায়ন হবে। ১৪ শতাংশ মনে করছেন নির্বাচনের পর অর্গানোগ্রাম বাস্তবায়ন হবে না। আর ০৯ শতাংশ অংশগ্রহণকারী ‘মতামত নেই’ বলে উল্লেখ করেছেন ।

লেখকঃ ভেটসবিডি

প্রাণিসম্পদ সংক্রান্ত একমাত্র বাংলা ব্লগ।

এটাও দেখতে পারেন

কেন এতো লুকোচুরি!

মৎস্য ও  প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাসহ প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাগণ এখন কানাডায় অবস্থান করছেন। যতদূর জানতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *