নীড় / জুনোটিক রোগ / মিডল ইস্ট রেসপিরেটরি সিনড্রম করোনা ভাইরাস

মিডল ইস্ট রেসপিরেটরি সিনড্রম করোনা ভাইরাস

১৫ জুন ২০১৪, রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রন ও গবেষণা (IEDCR) প্রতিষ্ঠান দেশে প্রথম মার্স করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করে।

মার্স ভাইরাসের পূর্ণরূপ মিডল ইস্ট রেসপিরেটি সিনড্রম করোনা ভাইরাস বা মার্স করোনা (Middle East Respiratory Syndrome Corona Virus MERS-CoV) ভাইরাস।এটি প্রথম শনাক্ত করেন মিশরীয় Virologist ডঃ আলী মোহাম্মদ জাকির। তিনি সর্ব প্রথম ২০১২ সালের এপ্রিলে সৌদি আরবের জেদ্দায় নিউমোনিয়া ও প্রসাব বন্ধ হয়ে যাওয়া এক পুরুষ রোগীর মাঝে জটিল এ ভাইরাস চিহ্নিত করেন। এরপর ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১২ ডঃ জাকির প্রথমবারের মতো এ বিষয়টি পোষ্ট করেন। মার্স ভাইরাস সার্স ভাইরাসের মতো হলেও এ দুয়ের মধ্যে কিছুটা পার্থক্য রয়েছে। মার্স সার্সের মতো ষষ্ট ভাইরাস। সাধারণ সার্স ভাইরাস থেকে কিছুটা ভিন্ন বলে মার্স ভাইরাসকে সৌদি ভাইরাসও বলা হয়।

এ পর্যন্ত ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, যুক্তরাজ্য, জর্ডান, কাতার, সৌদি আরব, তিউনিসিয়া, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২২ দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ রোগে আক্রান্তদের মারাত্মক উপসর্গ ও মৃত্যহারজনিত কারণে সারা বিশ্বে ব্যাপক চাঞ্চল্য ও সচেতনতা সৃষ্টি হয়েছে। মারাত্মক ছোঁয়াচে এ রোগ ছড়ায় রোগীর সংস্পর্শ থেকে। মার্স করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের মৃত্যুর হার ৩০ শতাংশ।

যে মাধ্যমে ছড়ায়ঃ সৌদি আরবে উটের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাইরাস।

যাদের আক্রমণ করেঃ মানুষ ও পশু – পাখি।

সতর্কতাঃ মুখে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে, হাঁসি-কাশি দেয়ার পরে মুখ ও হাত ধৌত করতে হবে, জনসমাগম পূর্ণ এলাকা থেকে দূরে থাকতে হবে।

ঝুকিপূর্ণ এলাকাঃ কানাডিয়ান একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠানসহ ৮টি দেশ ও ১২ টি শহরকে সর্বাধিক ঝুকিপূর্ণ এলাকা হিসাবে চিহ্নিত করেছে। দেশ গুলো হচ্ছে – বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, মিসর, কুয়েত, বাহরাইন, ইরান, এবং ব্রিটেন। ঝুকিপূর্ণ শহরগুলো হচ্ছে – ঢাকা, মুম্বাই, করাচি, কায়রো, কুয়েত সিটি, বাহরাইন, লন্ডন, কোজিখুদে, ইস্তানবুল, বৈরুত, ম্যানিলা এবং জাকার্তা।

তথ্য সুএঃ মার্স ভাইরাস উইকিপিড়িয়া ও পত্রিকা ।

লেখকঃ ডাঃ মোঃ নাহিদ হাসান

DVM, M.S in Pharmacology (BAU) E-mail: nahiddvm788@gmail.com

এটাও দেখতে পারেন

Antibiotics: Handle with care

World Antibiotic Awareness Week during 13-19 November 2017 is being observed globally with the aim …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *